Friday, July 17, 2015

আপনি মুসলিম/হিন্দু/ক্রিস্টান/বুদ্ধ আগে, নাকি বাংলাদেশী আগে?

অনেক বছর যাবৎ খেয়াল করছিলাম ফেসবুকে এবং ব্লগে বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় বা অপ্রয়োজনীয় বিষয় নিয়ে সুযুক্তি-কুযুক্তিতে মানুষজন মেতে ওঠে। এর মধ্যে কিছু বিষয়গুলা এমন যে দুই দিকেই পাল্লা ভারী থাকে, কিন্তু এক পক্ষ অন্য পক্ষকে মানতে চায় না, কিংবা প্রশ্নগুলাই ভিত্তিহীন হয়। এমনই কিছু বিষয় হলো,
  • আপনি মুসলিম/হিন্দু/ক্রিস্টান/বুদ্ধ আগে, নাকি বাংলাদেশী আগে?
  • ডিম আগে, নাকি মুরগি আগে?
  • দিন  আগে, নাকি রাত আগে?
  • সৃষ্টিকর্তা আছে, নাকি নাই?
  • ধর্মের প্রয়োজন আছে, নাকি নাই?
  • ধর্মগ্রন্থগুলা কি সৃষ্টিকর্তার দেয়া, নাকি মানুষের লেখা?
  • (আরো আছে, মনে পড়লে লিখবো) 

আমি আবার অফিসের কাজ ছাড়া অন্য বিষয়গুলা নিয়া সিরিয়াস কম থাকি। ছোট একটা জীবনে যদি সব সময় যদি সিরিয়াসই থাকি, তাহলে মজা করবো কখন আর হাসি-খুশি থাকবো কখন? সেদিন চট করে মাথায় এলো যে এরকম একটা বিষয় নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করি,
  • দেখা যাক আমার ফেসবুকের বন্ধুরা কি উত্তর দেয় এবং আজকাল তাদের মত কি?
  • দেখা যাক আমাদের এখন কোন দিকের পাল্লা ভারী?
  • দেখা যাক কয়জন বুজতে পারে যে এসব বিষয়গুলা নিয়ে আলাপ করে কোনো লাভ নাই
তাই এক-দুই মিনিট ভেবেই পোস্ট করে দিলাম নিচের প্রশ্নটা,
"আপনি আগে মুসলিম/হিন্দু/ক্রিস্টান/বুদ্ধ, নাকি আগে বাংলাদেশী?"
এই প্রশ্নটা করলে আপনার উত্তর কি হবে বা হওয়া উচিত?
ধারণা করছিলাম যে, 
  • কেউ কেউ থাকবে পক্ষে বা বিপক্ষে
  • কেউ কেউ বেশি উগ্র জবাব দিবে পক্ষে বা বিপক্ষে
  • কেউ কেউ নিজের যুক্তিটাই বড় করে দেখবে এবং অন্যের যুক্তি বুজবেই না বা মানতে চাইবে না
  • কেউ কেউ বেশি ইমোসনাল হয়ে উল্টা-পাল্টা লিখবে
যেমনটা ফেসবুকে এবং ব্লগে হয় আর কি। আমার পোস্টেও এর বাতিক্রম হলো না। যা হোক.

ফেসবুকে সবার মতামত দেখলাম, কিন্তু আমার মতামত কি দেয়া হয় নাই. ঠিক করেছিলাম একেবারে পরে আমার মতামত দিব. আমার চিন্তাগুলা এমন,
  • "আপনি আগে মুসলিম/হিন্দু/ক্রিস্টান/বুদ্ধ, নাকি আগে বাংলাদেশী?" - এই প্রশ্নতাই আসলে কুযুক্তিবাদীদের বা ঝগড়া লাগানোর জন্য তৈরী। আপনি শার্ট আগে পরবেন, নাকি পান্ট আগে পরবেন - এটা আপনার বাক্তিগত এবং অভ্যাসের বিষয়। এবং যেটাই আগে করেন সেটা আপনার বাক্তিগত পছন্দ 
  • আমি বাংলাদেশী এটা যেমন আমার পরিচয়, তেমনি আমি মুসলিম এটাও আমার পরিচয়।এরমধ্যে আগে পরে বলে কোনো কথা নাই. আপনার বুজতে হবে একটা মানুষের একাধিক পরিচয় থাকতে পারে। যেমন আমি একজন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, প্রজেক্ট ম্যানেজার। 
  • আমি একজন বাঙ্গালি ও আমার জাতীয়তা বাংলাদেশী। কারণ আমি এই দেশে জন্মগ্রহণ করেছি। এই দেশে বড় হয়েছি, পড়াশুনা করেছি, উপার্জন করছি। তাই দেশকে সবসময় কিছু দেয়ার ইচ্ছা রাখি সবসময়।
  • আমি একজন মুসলিম। কারণ আমার দৈনন্দিন দিনের চলাফেরা, ভালো-মন্দ, বেবহার, আচার-আচরণ, পোশাক-আশাক, খাওয়া-দাওয়া ইসলাম শিখিয়েছে। আর ২০০৯ এ আমি ইসলামকেই সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য পেয়েছি এবং গ্রহণ করেছি। (আগেতো আব্বু-আম্মু মুসলিম বলে, আমি মুসলিম ছিলাম). 
  • "আমি বাঙ্গালি ও বাংলাদেশী" আগে লিখেছি এবং "আমি একজন মুসলিম" পরে লিখেছি। এ নিয়েও কেউ কেউ তর্ক-বিতর্ক শুরু করে দিতে পারে। কিন্তু বুজতে হবে - কোনো না কোনটা তো আগে লিখতেই হবে। এ নিয়ে রাজনীতি(তর্ক-বিতর্ক,ঝগড়া) করার কিছু নাই।
আমার ফেসবুকের বন্ধুদের মতামতের পর আমার ধারণাগুলো,
  • যারা ধর্ম কম মানে বা মানে না, তারা ধর্ম থেকে দেশের গুরুত্ব দিয়ে থাকে। 
  • যারা ধর্ম মেনে চলার চেষ্টা করে, তারা ধর্মকেই একটু গুরত্ব দিয়ে থাকেন। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তার কাছে দেশের আগে ধর্ম। 
  • যারা ইসলাম ধর্ম মেনে চলার চেষ্টা করে, তারা আরেকটি কারণে ধর্মকেই একটু বেশী গুরত্ব দিয়ে থাকেন। তাদের চিন্তা - "যে আল্লাহ(সৃষ্টিকর্তা) আমাদের সৃষ্টি করেছেন, যে এই বিশ্ব সৃষ্টি করেছেন, তার প্রণীত ধর্মের এবং তার ইবাদতের উপর তো গুরুত্ব বেশি দিতেই হয়. মরার পর তো আলাহর কাছেই যেতে হবে. তখনতো দেশ তাকে বাচাবে না।" কিন্তু তার মানে এই নয় যে তার কাছে দেশের কোনো গুরুত্ব নাই। 
  • আবার যারা মনে মনে চিন্তা করে - "যদি সত্যিই মরার পড় দেখি যে ঘটনাতো সত্যি - জান্নাত-জাহান্নাম তো আছে. তো তখন আমার কি হবে. তাই ধর্মের ক্ষতি নাই এমন  জিনিসগুলা পালন করলে তো সমস্যা নাই". তারাও ধর্মকেই একটু গুরত্ব দিয়ে থাকেন।
  • আমি যা বলব তাই ঠিক, এমনটা ভাবার কোনো কারণ নাই। অন্যের কথা শোনা উচিত,গুরত্ব দেয়া উচিত এবং তার দৃষ্টিভঙ্গি বোঝা উচিত।
  • আমরা সবাই সবসময় জিততে চাই তা ভুল বা ঠিক দিয়ে হোক তা কেন? এটা ঠিক নয়।
  • আমাকে সব কথার জবাব দিতে হবে এমন কোনো কথা নেই যদি এতে আমার ক্ষতি না হয়।যদি বুজতে পারি যে অপরপক্ষ কোনো মতেই বুজবে না। তাহলে অযথা কথা বাড়িয়ে লাভ নাই।
  • বিতর্ক ভালো জিনিস, কিন্তু উগ্রতা ভালো নাহ।
  • একই বাক্য সুন্দর করে বা বাজে ভাবে লেখা যাই। আমাদের সুন্দর করে লেখা উচিত যেন কঠিনগুলাও যেন হজম করতে সুবিধা হয়।
  • .....
আমার ফেসবুকের বন্ধুদের মতামতের মধ্যে যুক্তিসংগত পোস্টগুলা তুলে ধরলাম যদিও অনেক পোস্টগুলা নিদ্রিষ্ট বিষয়ের বাইরে,
  • অবশ্যই আমি মুসলিম, ধর্ম আর দেশ দুইটা দুই জিনিস
  • উত্স:বাংলাদেশি, প্রকৃতি:মুসলিম, অবয়ব: প্রভাবিত(বাংলাদেশি), সুসংবদ্ধ:(মুসলিম), প্রভাব: সুনির্দিস্ট (বাংলাদেশি),সার্বজনীন (মুসলিম). বাঙ্গালি মুসলিম সঠিক,কিন্তু মুসলিম বাঙ্গালি নয়. (কারণ ব্যক্তিসত্ত্বা কে প্রভাবিত করে জ্ঞানলব্ধ গুণ)
  • I don't want to hit somebody. Muslim is our first introduction and being a Bangladeshi is also Allah's swt decision.I don't know everything, but the more i know I want to keep it up. I think you want to find out some contradiction, there is no way. Patriotism is also a part of our religion beyond other thing.
  • আমার প্রশ্ন তারো আগে, আমি বাংগালি, পাহাড়ি, নাকি বাংলাদেশী।
  • আমার মাঝে আঞ্চলিকতা বেশ কম। শুধু বাংলাদেশি বলেই আমি একজন কে বাঁচাতে যাবো না। যদি এমন হয় বাংলাদেশি মানুষটাকে আমি চিনিই না কিন্তু আমেরিকান জন গত দশ বছর ধরে আমার বন্ধু, আমি আমেরিকানকেই বাঁচাবো। কিন্তু যদি দুইজনই অপরিচিত হয় তাইলে বাংলাদেশির চান্স বেশি!! কারন সে সাহায্য চাইবে বাংলাতে! আমি মনে করি মানুষের সাথে সম্পর্ক হবার জন্য ভাষা খুব গুরুত্বপূর্ণ।
  • Muslim. And I believe in terms of identity, ideology should come first.
  • আমাদের দেশের অধিকাংশ সিলেটের লোকেরা কিন্তু বিদেশে গিয়া বলেনা আমার বাড়ি বাংলাদেশ, ওরা বলে সিলেট, এখন ব্যাপার হলো দেশ একট সিমান্র মধ্যে আবধ্য, কিন্তু ধর্মের কিন্তু কোন সিমা নাই, একটা ঘটনা বলি, আমেরিকার এয়ারপোর্টে ইমিগ্রেন্ট অফিসার এক লোকের নামের আগে মোহাম্মদ আর পাসপোর্টে দেশের জাগায় বাংলাদেশ দেখে জানতে চায় তুমি মুস্লিম, লোক্টা মাথা নাড়ে, এইবার জান্তে চায় বাংলাদেশ সেটা কোথায়? উনি বলেন বাংলাদেশের পাসে ইন্ডিয়া, অফিসার বলে ও আচ্ছা ইন্ডিয়ার পাসে বাংলাদেশ। ভদ্রলোক মাথা নেড়ে বলে না বাংলাদেশের পাসে ইন্ডিয়া, এখানে আস্ফাকের প্রশ্নটা আসতে পারে কোনটা আগে ভারত না বাংলাদেশ, গল্পের মুল প্রতিপাদ্য হইলো ধর্ম মানুষের কর্মে বর্নে আর নামে ঢুকে গেছে। সুতারাং ধর্ম মানুষের বিসাল একটা সংযোগের জায়গা। এই কিছু মানুষই গোত্রে বিভক্ত, এই গোত্র আদিম কাল থেকে বিদ্য মান আছে থাকবে, থাকা দরকারও, আমি বলব জয় গোত্রের জয়।
  • আমার মন্তব্য কেন প্রয়োজন বুঝলাম না, একেই এই সব প্রশ্ন করা হলে তার জবাব দিতে আমার আগ্রহ থাকে না, দ্বিতীয়ত,প্রশ্নের দ্বিতীয় অংশ আবার উত্তর কী হওয়া উচিৎ- অর্থাৎ, নৈতিকতার বিষয়। নৈতিকতা এক চিরপরিবর্তনশীল ধারণা।ব্যক্তিতে, রাষ্ট্রে, সময়ে এই ধারণা বদলে যায়। যাক, এসেছি যখন বলেই যাই, জাতিতে আমি বাঙালি। রাষ্ট্র বা ধর্ম বদলে ফেললেও এই পরিচয় ধ্বংস করা যাবে না। আর কোনো পরিচয়-ই আমি জন্মসূত্রে বহন করি না,বরং পৃথিবীতে আসার পরে রাষ্ট্রীয় আর ধর্মীয় পরিচয় আমাকে তুলে দেয়া হয়েছে। বিদায়..............
  • When you'll go abroad everyone will ask you where are you from, not your religion. When you are born, you born here as a Bangladeshi. You born in a Muslim family doesn't make you a Muslim. You nature, food habit depends on the region you are from. Not all Arabians are Muslim and not all american/Europeans are christian. Region defines our behavior and who we are not religion. Religion is someone's personal belief.
  • যেমন ধর আমাদের সমাজে ৯০% লোক জামা কাপর পরে ১% ও কম যারা পরেনা তোমার কাছে কোন্টা ঠিক জামা কাপর পরা না পরাটা, উত্তর যদি হয় পরা তাহলে তুমি মেজরিটির কথা মেনে নিলে, আমাদের সমাজে মেজরিটি কিন্তু ধর্ম নিয়ে আগে ভাবে তার পর দেশ নিয়ে। তবে হ্যা বিশ্ব পরিচিত হবার জন্য জাতী কে গুরুত্ব দেয়া হয়, এটা সেষ্টেম, তার মানে এই নয় যে মানুষ ধর্মের আগে দেশ ভাবে, তাহলে আমার দেশের উপার্জনের টাকায় কেউ ভারতে বাড়ি কিনতো না, বা পাকিস্তানের বদলে দুবাইকে অল্টারনেট ভেবে ফ্লাট কিনত না।
  • গোয়ারের মতন আমার যতটুকু ভালো লাগে সেটাই বিশ্বাস করা দলকানা স্বভাবের অংশ।
  • তেমনি মাথা ব্যাথা নেই কে আগে বাংগালী বা আগে মুস্লিম এটা নিয়াও, যে যেটা মেনে নিয়ে আরামে থাকে সেটাই ভালো। তবে কোন ব্যাপারেই উগ্রতা ভালোনা, উগ্র দেশ প্রেমিক ও দেশের জন্য খারাপ। একজন মুক্তমনা হইতে গেলে বিরধি পক্ষএর মতামতো সমান গুরুত্ব নিয়া দেখার চেষ্টা করা উচিত। কেউ দারি রাখলে যে সে রাজারের দোশর হয়ে গেছে, ভাবাটা যেমন ভুল, তেমনি কারো মোচ থাকলে রাবন ভাবাটা আর এক বোকামি। তুমি সাইকোলজি জানা চেষ্টা করছ দেখে ভালো লেগেছে।
  • রাজাকার ধষক এর মানসিকতা আমি বোঝতে চাই না । যেসব পরিবার তাদের আদর পেয়েছে তারা বোঝে।
  • তোমাদের এই মানুষিকতাই দায়ী আজকের এই প্রশ্ন আসার জন্য। তোমরা যুক্তি না বুঝে একতরফা ঝাপিয়ে পরো,
  • তুমি আমার যুক্তি কে আমার বিশ্বাস বানাতে পারোনা, যেটা তুমি ব্যাক্তি আক্রমন করে করলে
  • These are totally two different questions. Don't try to mixed these up. I am bangali and I am muslim. another one may be bangali and Hindu.

[তাড়াতাড়ি লিখেছি, তাই কিছু সংযোজন বা ভুল শব্দের পরিবর্তন করতে পারি। এ নিয়ে রাজনীতি করার কিছু নাই।]